আম, চালকুমড়া, পেঁপে, বেল, আনারস ও আমলকির মোরব্বা

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaরেসিপিআম, চালকুমড়া, পেঁপে, বেল, আনারস ও আমলকির মোরব্বা
Advertisements

ষড়ঋতুর বাংলাদেশে সারা বছরই আচার তৈরী করা হয়। এ কাজে আমাদের মেয়েরা এক্সপার্ট। আচারের পাশাপাশি অনেকে মোরব্বা তৈরী করেন। এই মোরব্বা জর্দা, কেক, পাউরুটি ইত্যাদির মধ্যে মুখরোচক হিসাবে ব্যবহার করা হয়। শুধু মোরব্বা এমনি এমনি খাওয়া যায়। আর, তৈরী করা মোরব্বা কাঁচের বোয়ামে রেখে দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করা যায়।

আজকের লেখার ৬টি ভিন্ন ভিন্ন ধরনের মোরব্বা তৈরীর রেসিপি আলোচনা করা হয়েছে। চলুন পড়ে নিয়ে যার যার পছন্দের মোরব্বা তৈরী করতে লেগে যাই।

আমের মোরব্বা রেসিপি

amer morobba
আমের মোরব্বা

আমের মোরব্বা বানাতে বড় বড় আঁশ যুক্ত কাঁচা আম লাগে। এই মোরব্বা টকের সাথে একটু মিষ্টি মিষ্টি ভাব আছে। খেতে বেশ সুস্বাদু। তাহলে চলুন পড়ে নেয়া যাক আমের মোরব্বা তৈরীর পদ্ধতি।

উপকরণ

উপকরণের নামপরিমাণ
বড় কাঁচা আম৭-৮টি
চিনিদেড় কেজি
ফিটকিরি গুঁড়া১ চা চামচ
পানিপরিমাণ মতো
তেজপাতা২টি
এলাচ১ টুকরা
চুন ভেজানোআধা চা চামচ

রান্নার পদ্ধতি

১।আম ভালো করে ধুয়ে নিন। এরপর খোসা ছাড়িয়ে প্রতিটি আমের ২ টুকরা করে নিন। আমের আঁটি ফেলে পানিতে রাখুন অনেকক্ষণ।
২।কাঁটা চামচ দিয়ে আমগুলো ভালো করে কেচে নিন। এরপর আমগুলো আবার পরিষ্কার পানিতে রাখুন। এভাবে ১ ঘণ্টা পরপর ২ থেকে ৩ বার পানি বদলিয়ে নিন।
৩।পরিষ্কার পানিতে চুন ও ফিটকিরি গুলে নিন। চুন ও ফিটকিরি গোলানো পানিতে প্রায় ৩-৪ ঘণ্টা ডুবিয়ে রাখুন। ২ ঘণ্টা পর পানি থেকে আমগুলো নিংড়িয়ে তুলুন।
৪।ফুটানো পানিতে আমগুলো দিয়ে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন।
৫।চিনিতে পরিমাণ মতো পানি দিয়ে সিরা তৈরি করুন। সিরায় আম দিয়ে জ্বাল দিতে থাকুন। আচার জ্বাল দেওয়া হলে সেটি নামিয়ে এক রাত রেখে দিন।
৬।পরের দিন আবার জ্বাল দিয়ে ঘন হলে তা নমিয়ে বয়ামে ভরে রাখুন।

চাল কুমড়ার মোরব্বা

chal kumrar morobba
চাল কুমড়ার মোরব্বা

এই চাল কুমড়ার মোরব্বা সবচেয়ে বেশি তৈরী হয়। কারণ, কেকের বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদনে এই মোরব্বাই বেশি ব্যবহৃত হয়।

উপকরণ

উপকরণের নামপরিমাণ
ছোট চাল কুমড়া১ টি
চিনি১ কাপ
পানি১ কাপ
এলাচি৩/৪ টি
দারুচিনি৪/৫টি
ঘি২ টেবিল চামচ
জাফরানসামান্য

রান্নার পদ্ধতি

১।চাল কুমড়ার উপরের চামড়া আর ভেতরের বিচি ফেলে পরিষ্কার করুন। ছোট ছোট টুকরো করে নিন। একটি কাটা চামচ দিয়ে টুকরো গুলোর চারপাশ ভালো করে কেচে নিন।
২।পাতিলে পানি গরম করে চাল কুমড়ার টুকরো গুলো আধা সেদ্ধ করে নিন। তারপর পরিস্কার কাপড়ে চেপে চেপে পানি নিংড়ে নিন।
৩।আরেকটি কড়াইয়ে ঘি দিয়ে সেদ্ধ টুকরো গুলো কযেক মিনিট হালকা করে ভেজে নিন।
৪।অন্য পাতিলে চিনি এবং পানি দিয়ে চিনির সিরা বানিয়ে নিন।
৫।সিরার মধ্যে দারুচিনি, এলাচ আর জাফরান দিন।
৬।চুলা অন রেখেই তার মধ্যে চাল কুমড়ার টুকরা দিন। মাঝে মাঝে নেড়ে দিন সাবধানে যেন ভেঙ্গে না যায়।
৭।সিরা ঘন হয়ে চাল কুমড়ার সাথে লেগে এলে নামিয়ে ফেলুন।

এভাবেই তৈরী হয়ে গেল চাল কুমড়ার মোরব্বা।

বেলের মোরব্বা

beler morobba
বেলের মোরব্বা

উপকরণ

উপকরণের নামপরিমাণ
কাঁচা বেল১ টি
চিনি১ কাপ
এলাচের গুঁড়ো১ চামচ

রান্নার পদ্ধতি

১।প্রথমে কচি বেল ছুরি দিয়ে খোসা ছাড়িয়ে গোল চাকা চাকা করে কেটে নিন। পরিস্কার কাঠি দিয়ে ভেতরের আঠা ও বীজগুলি বের করুন।
২।এরপর এক ঘন্টা চুনের পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। চুনের পানি থেকে তুলে নিয়ে পরিষ্কার পানি দিয়ে সেদ্ধ করে পানি টা ফেলে দিন।
৩।এবার চুলায় একটি পাত্রে পানির সাথে চিনি মিশিয়ে চিনির রস যখন ফুটিয়ে তুলুন।
৪।ফুটন্ত চিনির রসের উপরের গাঁদা ফেলে দিয়ে বেলের চাকাগুলো রসের মধ্যে দিয়ে দিন।
৫।বেলের চাকাগুলো সিদ্ধ হলে ও রসটা ঘন হলে নামিয়ে এলাচের গুঁড়ো মিশিয়ে দেবেন। খেয়াল রাখবেন, বেলের চাকাগুলো রসের মধ্যে যেন ডুবে থাকে।

এভাবেই তৈরী হলে গেল বেলে মোরব্বা

পেঁপের মোরব্বা

peper morobba
পেঁপের মোরব্বা

পেঁপের মোরব্বা একটু ভিন্ন ধরণের মোরব্বা। এই মোরব্বা ডেজার্ট তৈরিতে কুচি কুচি করে কেটে দিয়ে ডেজার্টটি খুব সুন্দরভাবে সাজাতে ও পরিবেশন করতে পারবেন।

উপকরণ

উপকরণের নামপরিমাণ
পেঁপে টুকরা৪ কাপ
চিনি২ কাপ
পানি২ কাপ
তেজপাতা১টি
ভেনিলা১ চা চামচ
এলাচ১টি
লবঙ্গ১টি
ফুড কার্লারপরিমাণমতো।

রান্নার পদ্ধতি

১।প্রথমে একটি প্যানে পানি ফুটিয়ে টুকরা টুকরা করা পেঁপেগুলো আধা সিদ্ধ করে নিন।
২।আধা সিদ্ধ হয়ে গেলে ছেঁকে নিয়ে একটি শুকনা পাত্রে রাখুন।
৩।এবার আরো একটি পাত্রে চিনি, পানি, তেজপাতা, এলাচ ও লবঙ্গ দিয়ে মিশিয়ে সিরা তৈরি করুন।
৪।সিরা হয়ে এলে আধা সিদ্ধ পেঁপে দিয়ে আরো কিছুক্ষণ জ্বাল দিন।
৫।সিরা আঠালো হয়ে এলে হাত দিয়ে একটু পরখ করে নিন, যাতে পুরোপুরি আঠালো হয়।
৬।এবার পেঁপেগুলোকে নামিয়ে আলাদা আলাদা বাটিতে রেখে তাতে ভেনিলা ও বিভিন্ন ফুড কার্লার খুব ভালো করে মিশিয়ে ৮-১০ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন।
৭।ফ্রিজ থেকে নামিয়ে ছেঁকে নিয়ে পেঁপেগুলোকে ৩-৪ দিন রৌদ্রে অথবা চুলার নিচে দিয়ে শুকাতে হবে। মনে রাখতে হবে যে মোরব্বাগুলোকে খুব বেশি পরিমাণ শুকানো যাবে না।

এভাবেই আমরা তৈরী করব পেঁপের মোরব্বা। এবার একটি কাঁচের বয়ামে সংরক্ষণ করুন।

আমলকির মোরব্বা

amlakir morobba
আমলকির মোরব্বা

পুষ্টিকর ফল আমলকি দিয়ে বানানো মোরব্বা বিভিন্ন খাবারের সাথে দেয়া যায়। এটি খেতেও বেশ মজাদার এবঙ অনেকদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করে রাখা যায়।

উপকরণ

উপকরণের নামপরিমাণ
বড় বড় পাকা আমলিক
চিনি১ কাপ
পানিপরিমাণ মতো

রান্নার পদ্ধতি

১।ধারালো ছুরি বা বটির সাহায্যে আমলকির ছাল ছাড়িয়ে নিতে হবে। এছাড়া, সহজে ছাল ছাড়ানোর জন্য মাটির হাড়িতে ঘষে নেয়া যেতে পারে।
২।এবার প্রতিটি আমলকিকে ছুরির আগা দিয়ে কেঁচে নিতে হবে।
৩।কেঁচে নেয়ার পর পানিতে ধুয়ে সেদ্ধ করতে হবে।
৪।তারপর আবার পানিতে ধুয়ে চিনির শিরায় জ্বাল দিতে হবে।

এভাবেই তৈরি হয়ে যাবে আমলকির মোরব্বা।

কমলার মোরব্বা

komlar morobba
কমলার মোরব্বা

কমলার মোরব্বা একেবারেই আনকমন একটা আইটেম। তবে, এটি খেতে দারুন। কমলার মোরব্বার আলাদা সুঘ্রাণ ও স্বাদ বেশ ভালো। কমলার মোরব্বা দীর্ঘ দিন সংরক্ষণ করা যায়।

উপকরণ

উপকরণের নামপরিমাণ
বড় কমলাপ্রয়োজন মত

রান্নার পদ্ধতি

১।প্রথমে কমলাগুলোকে পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিতে হবে।
২।আস্ত রেখেই মাটির হাঁড়িতে ঘষে অথবা ব্লেড দিয়ে খোসার ওপরের অংশ ছিলে নিতে হবে।
৩।ওপরের অংশ থেকে গোল করে ঘুরিয়ে কেটে উঠিয়ে নিয়ে, ভেতর থেকে খুব সাবধানে কোয়া এবং খোসার সঙ্গে লেগে থাকা সাদা অংশ ছাড়িয়ে নিতে হবে।
৪।তারপর কমলা পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। কয়েকবার পানি বদলের পর ফুটন্ত পানিতে দিয়ে সামান্য সেদ্ধ করে নিতে হবে। তারপর অন্যান্য মোরব্বার মতই শিরায় দিয়ে রাখতে হবে।

কমলার মোরব্বা যারা এখনও খাননি, বাসায় চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

মোরব্বা তৈরীর প্রাক-পদ্ধতি

  • সাধারণত: যেটা দিয়ে মোরব্বা বানানো হয়, যেমন: আম, চালকুমড়া, পেঁপেঁ, বেল, ইত্যাদি, ভাল করে ধুয়ে কাটা চামচ দিয়ে ভাল করে খুঁচিয়ে কেঁচে নিতে হয়।
  • তারপর দীর্ঘক্ষণ পানি ভিজিয়ে রাখতে হয় যেন ফলের টক ও কষ বের কমে আসে।

পড়ার মত আরো আছে:

ক্যাটাগরিঃ রেসিপি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.