উন্মু্ক্ত হলো Microsoft Office 2019, নতুন কি আছে?

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaবিজ্ঞান ও প্রযুক্তিউন্মু্ক্ত হলো Microsoft Office 2019, নতুন কি আছে?
Advertisements

যুক্তরাষ্ট্রের সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফট ২৪ সেপ্টেম্বর সোমবার তাদের জনপ্রিয় সফটওয়্যার প্যাকেজ “অফিস” এর নতুন ভার্সন, অফিস ২০১৯ (Office 2019), উন্মোচন করেছে, যা উইন্ডোজ ও অ্যাপল, উভয় অপারেটিং সিস্টেমের জন্য পাওয়া যাবে।

অফিস ২০১৯ এর নতুন এই ভার্সনে যুক্ত করা হয়েছে অফিস ৩৬৫ প্রো-প্লাস এর প্রিমিয়াম সব ফিচারগুলো। এই ফিচারগুলোর মধ্যে রয়েছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (artificial intelligence, AI), সিকিউরিটি, আরও অনেক ফিচারসমূহ। বলাই বাহুল্য যে, এগুলো প্রিমিয়াম ফিচার, যা অফিস অ্যাপের মধ্যে দেয়া হয়েছিল না।

নতুন কি কি আছে Office 2019 এ?

মাইক্রোসফটের অফিস ৩৬৫ সেবার আওতায় যাঁরা নেই, তাঁদের জন্য হালনাগাদ Office 2019 উন্মোচন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। অফিস ৩৬৫ সেবার আওতায় থাকা গ্রাহকেরা প্রতি মাসেই ফিচার হালনাগাদ পেয়ে থাকেন।
আগের তিন বছর ধরেই অফিস ২০১৯-এর নতুন ফিচারগুলো অফিস ৩৬৫-এ আনা হয়েছে।

এবার আলাদাভাবে ওয়ার্ড, এক্সেল, পাওয়ার পয়েন্ট, আউটলুক, প্রজেক্ট, ভিজিও অ্যাকসেস এবং পাবলিশার-এ আনা হয়েছে ফিচারগুলো।

office-2019-distraction-free-writing
Distraction-free Content Writing

সংযুক্ত করা নতুন ফিচারগুলোর সাহায্যে অফিস ২০১৯ এখন আগের থেকে আরো দ্রুত কনটেন্ট তৈরী করতে ব্যবহারকারীদেরকে। পাওয়ারপয়েন্টে নতুন যুক্ত করা Morph এবং Zoom ফিচারগুলোর সাহায্যে সিনেম্যঅটিক প্রেজেন্টেশন তৈরী করা সম্ভব হবে।

অফিস ২০১৯-এর সব অ্যাপে এখন একটি পেনসিল কেইস ও রিবন কাস্টমাইজেশন সুবিধা পাবেন গ্রাহকেরা। এর মাধ্যমে ডক বা অন্যান্য ফাইলে বিভিন্ন রঙের পেনসিল দিয়ে আঁকা যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর পাশাপাশি এই হালনাগাদে ওয়ার্ড অ্যাপে নতুন ট্রান্সলেটর ও ফোকাস মোড আনা হয়েছে। ইনকিং ফিচারকে আরও উন্নত করে আনা হয়েছে, যেমন: রোমিং পেনসিল কেস, প্রেসার সেনসিটিভিটি, এবং টিল্প এফেক্ট – এগুলো ব্যবহারকারীর জন্য কনটেন্ট ব্যবস্থাপনাকে আরও সহজতর করে দিবে।

office-2019-excel
New Excel of Office 2019

এক্সেল ২০১৯ এ যুক্ত করা হয়েছে নতুন কিছু ডাটা অ্যানালাইসিস ফিচার, যার মধ্যে রয়েছে নতুন ফরমুলা ও চার্ট এবং PowerPivot কে আরও উন্নত করা হয়েছে। এ ছাড়া পাওয়ার পয়েন্টে যোগ হচ্ছে মরফ ট্রানজিশন, এসভিজি (স্কেলেবল ভেক্টর গ্রাফিকস) ও থ্রিডি মডেল সমর্থন এবং ফোর কে ভিডিও এক্সপোর্ট ফিচার।

আগামী প্রান্তিকগুলোতে এক্সচেঞ্জ সার্ভার ২০১৯, স্কাইপ ফর বিজনেস সার্ভার ২০১৯, শেয়ারপয়েন্ট সার্ভার ২০১৯ এবং প্রজেক্ট সার্ভার ২০১৯-এর আপডেট আনবে মাইক্রোসফট।

ওয়ার্ড ২০১৯ এবং আউটলুট ২০১৯ তে ফিচারগুলোকে এমনভাবে সাজানো হয়েছে যা ব্যবহারকারীরা সচরাচর বেশি ব্যবহার করেন। Read Aloud এবং Text Spacing এর মত লার্নি টুলগুলো কনটেন্টের সাথে আরও ইন্টারঅ্যাকটিভ করা হয়েছে। কনটেন্ট লিখবার সময় ব্যবহারকারীদের অখণ্ড মনোযোগ দেয়ার জন্য যুক্ত করা হয়েছে ‘ডিসট্র্যাকশন ফ্রি’ মোড।

আর, আউটলুট এ ইনবক্সকে আরও প্রাসঙ্গিক ইমেলগুলোকে ব্যবহারকারীদের জন্য সাজানো হয়েছে, যাতে তারা ব্যবসার প্রতি আরও ফোকাসড হতে পারেন।

এছাড়াও, অফিস ২০১৯ এর আরও নিরাপত্তা সুরক্ষা দিতে এতে যুক্ত করা হয়েছে নতুন IT সিস্টেম ও আরও সহজ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ইউজার ইন্টারফেস। স্মরণ করা যেতে পারে, অফিস ২০১৩ তে যুক্ত করা হয়েছিল Click-to-Run (C2R) সিস্টেম – এটি একটি আধুনিক ডিপ্লোয়মেন্ট প্রযুক্তি, আর এটিকে বিশ্বব্যাপী অসংখ্য ডিভাইসে অফিস অ্যাপকে ব্যবহার উপযোগী করে দেয়া যেত।

অফিস ২০১৩ এর আগের ভার্সনগুলো MSI বেসড সিঙ্গেল-পিসি ইন্সটলার সিস্টেম ব্যবহার করা হত। নতুন ডিপ্লোয়মেন্ট সিস্টেম চালু করা হতে অপারেটিং সিস্টেমের মত অফিস ২০১৯ ব্যবহারকারীগণ অনলাইনের মাধ্যমে ভার্সন আপডেট পাবেন।

office-2019-power-point
New Powerpoint in Office 2019

অফিস ২০১৯ এর নতুন নতুন ফিচারগুলো একনজরে দেখে নেয়ার জন্য মাইক্রোসফট সাইটে FAQ এ তুলে ধরা হয়েছে।

তবে, ফুরফুরে মেজাজে থাকতে পারেন ম্যাক ইউজারগণ, কারণ, যে সকল ব্যবহারকারীগণ OneNote এ সংযুক্ত আছে, অফিস ২০১৯ এ যেতে তাদের কোন অসুবিধা হবে না।

মাইক্রোসফট জানিয়েছে, যারা এই মুহুর্তে ক্লাউড-ভিত্তিক অফিস ৩৬০ তে যেতে পারছেন না, তাদের জন্য অফিস ২০১৯ একটি মূল্যবান অপশন হতে পারে। আর, মাইক্রোসফট ঘোষণা দিয়েছে রেখে, ভবিষ্যতেও ব্যবহারকারীদের জন্য অফিস সফটওয়্যারগুলোর জন্য হালনাগাদও নিয়ে আসবে।

তথ্যসূত্র: মাইক্রোসফট ও দ্য ভার্জ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.