প্যানাসনিকের লুমিক্স এফটি-৭ ওয়াটারপ্রুফ শকপ্রুফ ৪কে কম্প্যাক্ট ক্যামেরা

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaগেজেট রিভিউপ্যানাসনিকের লুমিক্স এফটি-৭ ওয়াটারপ্রুফ শকপ্রুফ ৪কে কম্প্যাক্ট ক্যামেরা
Advertisements

ওয়াটার প্রুফ ও ডাস্ট প্রুফ ক্যামেরার একটি মডেল “লুমিক্স এফটি সেভেন” (Panasonic Lumix FT7) নিয়ে এলো বিশ্বখ্যাত ইলেকট্রনিক কোম্পানি প্যানাসনিক। প্যানাসনিকের অফিসিয়াল ঘোষণা অনুযায়ী এটি শুধু ওয়াটার প্রুফ এবং ডাস্ট প্রুফই শুধু নয়, এটি ফ্রিজপ্রুফও।

এই ক্যামেরার আরেকটি বিশেষত্ব হচ্ছে, এটি দিয়ে ফোরকে মানের ভিডিও করা যাবে এবং বাহ্যিক চাপে এটি নষ্ট হবে না; এমনকি ক্যামেরাটি হাত থেকে পড়লেও ভাঙবে না!

নীল, কমলা ও কালো তিন রঙে পাওয়া যাবে নতুন এই ক্যামেরা।

এই ক্যামেরার প্রধান আকর্ষণ এর ইলেকট্রনিক ভিউ ফাইন্ডার। ক্যামেরাটিতে রয়েছে ০.২ ইঞ্চির ভিউ ফাইন্ডার। এর ফলে ভিউ ফাইন্ডারে চোখ রেখে আরও ভালো ছবি তোলা সম্ভব হবে। এতে ব্যাটারী খরচ কমে যাবে; বেড়ে যাবে ব্যাটারীর আয়ু। এছাড়াও এই ক্যামেরায় রয়েছে একটি এলসিডি মনিটর।

এছাড়াও ক্যামেরার এলসিডি স্ক্রিনের উপরে রয়েছে টেমপার্ড গ্লাসের সুরক্ষা। নতুন এই ইলেকট্রনিক ভিউ ফাইন্ডারের ফলে এই সেগমেন্টে নিকন কুলপিক্স ডব্লিউ৩০০ এর মতো প্রতিদ্বন্‌দ্বীদের থেকে অনেকটাই এগিয়ে রইলো প্যানাসনিকের এই ক্যামেরা।

এই ভিউ ফাইন্ডার ছাড়াও নতুন লুমিক্স এফটি সেভেনে রয়েছে একটি ২০.৪ মেগাপিক্সেল সেন্সর। সঙ্গে রয়েছে একটি ২৮–১২৮ মিমি ফিক্সড লেন্স। এই ক্যামেরাতে রয়েছে অপটিকাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন। বার্স্ট বা কনটিনিউয়াস মুডে সেকেন্ডে ১০টি ছবি তুলতে সক্ষম এই ক্যামেরা।

এছাড়াও কন্টিনিউয়াস ফোকাসে ৪৯ টি ফোকাস পয়েন্টই ব্যাবহার করলে সেকেন্ডে ১০টি ছবি তুলতে পারবে এই ক্যামেরা। ডিভাইসটি দিয়ে তোলা যাবে ফোরকে ভিডিও। ২৪পি এবং ৩০ পি দুটি মোডে তোলা যাবে ফোরকে ভিডিও। ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও তোলা যাবে ৬০পি সেটিংসে। ৭২০পি ভিডিও তুললে ব্যবহার করা যাবে ১২০ সেটিংস।

এছাড়াও এই ক্যামেরায় রয়েছে ২২ টি ক্রিয়েটিভ শুটিং মোড। ক্যামেরাটিতে ওয়াইফাই কানেক্টিভিটির সুবিধা। এই মাধ্যমে ক্যামেরা থেকেই সরাসরি ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুকে সরাসরি ছবি পোস্ট করা যাবে ক্যামেরা থেকেই। এছাড়াও জিপিএস এর মাধ্যমে জিওট্যাগ করা যাবে যে কোন ছবি। এর মাধ্যমেই পরে যেনে যাওয়া যায় ঠিক কোথায় তোলা হয়েছিল ছবিটি।

নতুন এই ক্যামেরাটি ৩১ মিটার ওয়াটারপ্রুফ। এছাড়াও ২ মিটার উপর থেকে পড়ে গেলেও কোন তি হবে না এই ক্যামেরার।

এছাড়াও –১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কনকনে ঠান্ডাতেও দারুন কাজ করবে এই ক্যামেরা। এছাড়াও ১০০ কেজি পর্যন্ত চাপ সহ্য করতে পারবে লুমিক্স এফ টি সেভেন।

সাধারণত: দেখা যায় না এমন কয়েকটি বৈশিষ্ট্যের মধ্যে রয়েছে, একটি টর্চলাইট, কম্পাস ও আল্টিমিটার।

এক নজরে প্যানাসনিক লুমিক্ট এফটি-৭ এর বৈশিষ্ট্যসমূহ

  • ২০.৪ মেগাপিক্সেল সেন্সর
  • ২৪পি এবং ৩০ পি দুটি মোডে ফোরকে মানের ভিডিও। ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও তোলা যাবে ৬০পি সেটিংসে
  • ০.২ ইঞ্চির ইলেকট্রনিক ভিউফাইন্ডার
  • ব্যাক এলসিডি মনিটর
  • ২৮–১২৮ মিমি ফিক্সড লেন্স
  • অপটিকাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন
  • বাস্র্টমুডে ১০টি কন্টিনিউয়াস ছবি তুলতে সক্ষম
  • ৪৯ টি ফোকাস পয়েন্ট
  • ২২ টি ক্রিয়েটিভ শুটিং মোড
  • ওয়াইফাই কানেক্টিভিটির সুবিধা
  • ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুকে সরাসরি ছবি পোস্ট করা যাবে
  • জিপিএস এর মাধ্যমে জিওট্যাগ করা যাবে
  • পানিতে ৩১ মিটার পর্যন্ত ওয়াটারপ্রুফ
  • শক প্রুফ
  • ১০০ কেজি পর্যন্ত চাপ সহ্য করতে পারবে
  • টর্চলাইট
  • কম্পাস
  • আল্টিমিটার
ক্যাটাগরিঃ গেজেট রিভিউ