বিশ্বের নয়নাভিরাম সেরা ১০টি জাতীয় উদ্যান দেখে আসি

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaভ্রমণবিশ্বের নয়নাভিরাম সেরা ১০টি জাতীয় উদ্যান দেখে আসি

পৃথিবীতে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা বৃহদকার অধিকাংশ জাতীয় উদ্যান কানাডা ও আমেরিকাতে অবস্থিত। তবে অন্যান্য মহাদেশেও বেশ সুন্দর জাতীয় উদ্যান রয়েছে।

হ্রদ বা নদীর পাশে বিশালাকার গাছপালা, ছোট সবুজ অরণ্য, চোখ জুড়ানো শ্যামল সতেজ স্নিগ্ধতা আর পাখির কলতান কার না ভালো লাগে? পৃথিবীতে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কোনো অভাব নেই। পাহাড়, নদী, সমুদ্র, বন-জঙ্গলে ছড়িয়ে রয়েছে প্রকৃতির অপরূপ সব দৃশ্য। আর সেসব অপরূপ জায়গাকে সংরক্ষণের জন্য পৃথিবীর প্রায় প্রতিটি দেশেই রয়েছে জাতীয় উদ্যান।

চলুন জানা যাক পৃথিবীর সুন্দরতম ১২টি জাতীয় উদ্যানের কথা।

১. ইউসেমাইট জাতীয় উদ্যান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (Yosemite National Park, California, USA)

আপনি যদি সবুজ-শ্যামল প্রকৃতি প্রেমী হয়ে থাকেন, তবে আপনার জন্য উত্তম একটি স্থান ইউসেমাইট জাতীয় উদ্যান। বসন্তের সময় আপনি যদি ইউসেমাইট ভ্রমণে আসেন তবে চোখ ফেরাতে পারবেন না এখানকার সৌন্দর্য থেকে। ইউসেমাইট এমন একটি স্থান, যার সৌন্দর্য দেখে আপনি অনেক বেশি অবাক হবেন।

এখানকার বন জুড়ে সে সময়ে ফুটে থাকে নানা রংয়ের বন্য ফুল। সেসব ফুলের রং, রূপ আপনাকে মুগ্ধ ও বিমোহিত করে রাখবে। তাছাড়া শীতে পাইন বনে তুষারপাত যে ভিন্ন চিত্র তৈরি করে সৌন্দর্যের তা দেখেও আপনি বিস্মিত হবে। এই সৌন্দর্য আপনাকে নিয়ে যাবে অন্য এক ভুবনে।

ইউসেমাইট জাতীয় উদ্যান, যুক্তরাষ্ট্র

২) ব্যানফ জাতীয় উদ্যান, কানাডা (Banff National Park, Alberta, Canada)

ব্যানফ জাতীয় উদ্যান কানাডার সর্বপ্রথম জাতীয় উদ্যান। এটি রকি পর্বতমালার কোলে অবস্থিত। ১৮৮৫ সালে এ উদ্যানটি কানাডার আলবার্টায় প্রতিষ্ঠিত হয়।

এ উদ্যানটি ছয় হাজার বর্গ কিলোমিটারেরও বেশি জায়গা জুড়ে বিস্তৃত, যাতে রয়েছে হ্রদ, পাহাড় ও হিমবাহ। উদ্যানটির উত্তরে লুইস হ্রদ থেকে জ্যাসপার জাতীয় উদ্যান পর্যন্ত রয়েছে বরফের বিশাল মাঠ। পশ্চিমে রয়েছে বন আর ইয়োহো জাতীয় উদ্যান। দক্ষিণে রয়েছে কোটেনি জাতীয় পার্ক।

তবে সবচেয়ে বিখ্যাত হলো জাতীয় উদ্যানের ঠিক মাঝখানে থাকা বো নদীর তীরে অবস্থিত ব্যানফ গ্রাম। প্রতি বছর প্রায় ৫০ লক্ষ পর্যটক এখানে আসেন ঘুরতে। ১০-২০ ডলার দিয়ে এর বিভিন্ন জায়গা ঘুরে দেখা যায়।

৩. ইসলা মাস্টামেনটর জাতীয় ম্যারিন উদ্যান, পানামা (Isla Mastamentor National Marine Park, Panama)

ইসলা মাস্টামেনটস জাতীয় ম্যারিন উদ্যান, পানামা

ন্যাশনাল পার্ক বা জাতীয় উদ্যান বলতে আমরা সাধারণ গাছপালা ভরা ভূমি, পাহাড়-পর্বত ঘেরা স্থান কিংবা সমুদ্রের খাঁড়ি জুড়ে উদ্ভিদের জীবনই বুঝি। তবে এটি যে প্রবালপ্রাচীর, মরুভূমির দ্বীপ কিংবা অবাক করা সমুদ্র সৈকতেও হতে পারে সেটি কি ভেবে দেখেছি কখনো? ইসলা মাস্টামেনটস জাতীয় ম্যারিন উদ্যানটি (Isla Mastamentor National Marine Park) ঠিক তেমনই অবিশ্বাস একটি স্থান, যা আপনাকে ভিন্নভাবে ভাবাবে। এ স্থানটিকে আপনার মনে হবে ঘন বন আর বেলে পাথরের মিশেলে ছড়িয়ে থাকা একটি সত্যিকারের স্বর্গ। এ উদ্যানটিতে রয়েছে ১০,০০০ প্রজাতির প্রাণী ও উদ্ভিদ।

৪. ক্রাকা জাতীয় উদ্যান, ক্রোয়েশিয়া (Krka National Park, Lozovac, Croatia)

৪. ক্রাকা জাতীয় উদ্যান, ক্রোয়েশিয়া

সবুজে ঘেরা বন, চোয়াল বেয়ে নামা অসাধারণ জলপ্রপাত, পঞ্চদশ শতাব্দীর প্রাচীন মঠ এসবের মিশ্রণেই ছড়িয়ে আছে ক্রাকা জাতীয় উদ্যানটি। এই চমৎকার ও অবিশ্বাস্য সৌন্দর্য আপনাকে নিঃসন্দেহে মুগ্ধ করবে। এটি হয়তো ক্রোয়েশিয়ার সবচেয়ে বড় কিংবা সবচেয়ে বিখ্যাত উদ্যান নয়, তবে এর বেশ কিছু সৌন্দর্য রয়েছে যা অবশ্যই অনেক সেরা সৌন্দর্যকে হার মানাবে আপনার চোখে। এবং আপনি মুগ্ধতা নিয়ে উপভোগ করবেন এই বনের সৌন্দর্য।

৫. টুলুম জাতীয় উদ্যান, মেক্সিকো (Tulum, Mexico)

টুলুম জাতীয় উদ্যান, মেক্সিকো

প্লেয়া দেল কারমেন থেকে অল্প সময়ের দূরত্ব, ভ্রমণ করার জন্য রয়েছে ১,৫০০ একর জুড়ে প্রাচীন মায়ান ধ্বংসাবশেষ এবং প্যারাডিজিক্যাল সৈকতগুলো, যা খুঁজে বের করে ঘোরাঘুরি এবং রোমাঞ্চ উপভোগে কাজে লাগায় ভ্রমণ প্রিয়রা। তবে সেসবের ভিড়ে টুলুম জাতীয় উদ্যানটি অত্যন্ত সুন্দর একটি স্থান। জায়গাটি ভ্রমণকালে পাশের অপূর্ব সুন্দর সমুদ্র সৈকত ও ঘন বনের সৌন্দর্য অবলোকন করতে ভুলবেন না।

৬. ইয়োলোস্টোন জাতীয় উদ্যান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (Yellostone National Park, USA)

ইয়োলোস্টোন জাতীয় উদ্যান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

ইয়োলোস্টোন জাতীয় উদ্যানটি অপ্রচলিত একটি জমি। এটি পৃথিবীর প্রথম প্রাকৃতিক উদ্যান, বৃহত্তম আগ্নেয়গিরি এলাকা এবং পৃথিবীর মুক্তভাবে ঘুরে বেড়ানো বন্য মহিষের বৃহত্তম শস্যভূমি। তাছাড়া বিখ্যাত উষ্ণপ্রস্রবণ থেকে শুরু করে আয়নার মত স্বচ্ছ জলের হ্রদ এবং আশ্চর্যজনক বন্য প্রাণীর জন্য ইয়োলোস্টোন জাতীয় উদ্যানটি আমেরিকার পশ্চিমাঞ্চলে বেশ পরিচিত।

৭. জেসপার জাতীয় উদ্যান, কানাডা (Jasper, Canada)

জেসপার জাতীয় উদ্যান, কানাডা

কানাডায় অবস্থিত জেসপার জাতীয় উদ্যানটি একটি বিশাল গাছপালা ঘেরা স্থান। এই জাতীয় উদ্যানটি আয়তনে বড়, বন্য প্রাণী ও উদ্ভিদ বৈচিত্র‍্যে পূর্ণ এবং একটি সমৃদ্ধ বন। বানফ পরিদর্শন করার পর, অদ্ভুত সুন্দর বরফক্ষেত্র থেকে জেসপারের সুন্দর কাঠ, তুষার নদী আর বৈচিত্র‍্যে ভরা বন্য জীবন দেখতে অনেক বেশিই ভালো লাগবে আপনার।

৮. চিতওয়ান জাতীয় উদ্যান, নেপাল (Chitwan National Park, Nepal)

চিতওয়ান জাতীয় উদ্যান, নেপাল

আফ্রিকার বাইরে বেশ অল্প কয়েকটি উদ্যান রয়েছে যা নেপালের চিতওয়ান জাতীয় উদ্যানের মতো বৃহৎ। গণ্ডার, চিতাবাঘ, বানর এবং বাংলার বাঘগুলোর সর্বোচ্চ দেখা পাওয়া যায় এই উদ্যানে। দারুণ সব গাছপালা ও বন্য প্রাণীর অবাধ বিচরণ কাছ থেকে দেখার জন্য জায়গাটি উপযুক্ত একটি জায়গা। নিজের প্রথম সাফারি ভ্রমণের জন্য এর চেয়ে সুন্দর জায়গা নিশ্চয়ই আর পাবেন না।

৯. প্লিটভাইস লেকস জাতীয় উদ্যান, ক্রোয়েশিয়া (Plitvice Lakes National Park, Croatia)

প্লিটভাইস লেকস জাতীয় উদ্যান, ক্রোয়েশিয়া

একেবারে সহজভাবে বলতে গেলে, প্লিটভাইস লেকটি অসাধারণ। ১৬টি চুনি ও ফিরোজা রংয়ের জলরাশিতে পূর্ণ লেক সংযুক্ত হয়ে আছে ডোজেন্সের সাথে। ডোজেন্স থেকে অদ্ভুত সুন্দর রংয়ের লেকের পানি দারুণভাবে প্রসারিত হয়ে বয়ে চলেছে এবং কিছু স্থানে জলপ্রপাতের সৃষ্টি করেছে। এই প্লিটভাইস লেকস জাতীয় উদ্যানটি আপনার নিজ সত্ত্বাকে ভুলে প্রকৃতির মাঝে হারিয়ে যাবার সুযোগ করে দেবে সহসাই।

১০. কিলিমাঞ্জারো জাতীয় উদ্যান, তানজানিয়া (Kilimanjaro, Africa)

কিলিমাঞ্জারো জাতীয় উদ্যান, তানজানিয়া

আফ্রিকার সর্বোচ্চ পাহাড় ধারণের জন্য খ্যাতি রয়েছে কিলিমাঞ্জারোর, যে পাহাড়ের চূড়া পর্বতারোহীদের কাছে স্বপ্নের একটি স্থান। কিলিমানজার জাতীয় উদ্যানটি অত্যন্ত সুন্দর ও বিখ্যাত একটি স্থান। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করা ও বন্য প্রাণীদের অসাধারণ দৃশ্য দেখার জন্য এটি এমন একটি জায়গা, যে জায়গাটি ভ্রমণ আপনার মনে থাকবে জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত।

ক্যাটাগরিঃ ভ্রমণ