৫টি Youtube ভিডিও ডাউনলোডার

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaটিপস ও ট্রিক্স৫টি Youtube ভিডিও ডাউনলোডার

অনলাইনে ভিডিও সংরক্ষণের জন্য বা আপনার নিজস্ব কোন ভিডিও ব্যাকআপ রাখতে আপনার একটি ফ্রি youtube downloader প্রয়োজন।

নিম্নোক্ত tools গুলোর দ্বারা আপনি YouTube থেকে video download করা ছাড়াও অন্যান্য ভিডিও শেয়ারিং সাইট থেকে নিজের পছন্দসই format অনুযায়ী ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। এগুলো দিয়ে আপনি চাইলে পুরো ক্লিপটাই সেভ করতে পারবেন অথবা মিউজিক ভিডিও বা পডকাস্ট সেভ করতে পারবেন।

ধীরগতিসম্পন্ন ইন্টারনেট সংযোগের ক্ষেত্রে ভিডিও স্ট্রিমিং করা বেশ কষ্টসাধ্য। এমতাবস্থায় সঠিক video downloader ব্যবহার করে পছন্দসই ভিডিও ডাউনলোড চালু রেখে, সুবিধামত সময়ে buffer বিহীন ভিডিও দেখতে পারবেন।

Free youtube downloader প্রতিনিয়তই পরিবর্তনশীল। তা সত্ত্বেও, আমরা আপনাদের প্রয়োজনে সবচেয়ে up-to-date টুলস একত্রিত করেছি।

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোডের উপায়

Third party app ব্যবহার করে ভিডিও ডাউনলোড করা ইউটিউব এর terms of service এর বিরুদ্ধে ইউটিউব এর সার্ভার থেকে আপনি কেবল ভিডিও স্ট্রিমিং করতে পারবেন। Download কৃত video এর ক্ষেত্রে copyright infringement হতে পারে, যদি না সেটা পাবলিক ডোমেইনের অন্তর্ভুক্ত না থাকে বা স্বত্ত্বাধিকারীর অনুমতি না থেকে থাকে।

১. 4k video downloader

  • এটি দ্রুত গতিসম্পন্ন এবং স্থিতিস্থাপক
  • Playlist download করা যায়
  • থ্রিডি এবং 360 degree video supported

এই টুলসটি সবচেয়ে দ্রুত এবং ঝামেলাবিহীন YouTube downloader। এটি সহজে ব্যবহার করা যায়। এর কাস্টোমাইজেশনের সুবিধা রয়েছে। বিজ্ঞাপন মুক্ত এবং অতিরিক্ত সফটওয়্যার ডাউনলোডের কোন ঝামেলাও এতে নেই।

এই সফটওয়ারে এমপিথ্রি ও mp4 সহ বিভিন্ন ধরনের ফরম্যাট বেছে নেবার সুযোগ আছে।

কোনো একটি ভিডিও বা একটি playlist (অনধিক 24 টি ভিডিও) এর url আপনার ওয়েব ব্রাউজার থেকে কপি করে পেস্টকৃত ইউআরএল এ ক্লিক করুন, output format বেছে নিন, ভিডিও কোয়ালিটি এবং লোকেশন নির্ধারণ করুন এবং ডাউনলোড শুরু করুন।

এটি ভিডিও propertyর অভ্যন্তরে প্রবেশ করে আপনাকে proxy connection এবং multi-screen download এর মত Tweak অপশন এর সুবিধাদি প্রদান করবে। উল্লেখ্য মাল্টি স্ট্রিমিংয়ের ক্রিমের সংখ্যা যত বাড়বে ডাউনলোডের গতি তত বৃদ্ধি পাবে তবে এর ফলে ঝুঁকি থাকছে যে, ইউটিউব আপনার আইপি এড্রেস ব্লক করে দিতে পারে।

এই সফটওয়্যারটির কি পারচেজ করলে ক্যাপশন সহ cleanest এবং আরও দীর্ঘতর playlist ডাউনলোডের সুবিধা পাবেন। ৭.৯৫ পাউন্ডের একটি key purchase এ আজীবনের জন্য তিনটি পিসিতে এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করতে পারবেন।

পেইড ভার্সনটি ব্যয় সাপেক্ষ মনে হতে পারে। তবে, ফ্রি ভার্সনটি অন্যান্য প্রায় চাহিদা মেটানোর জন্য যথেষ্ট।

২. WinX Youtube Downloader বৈশিষ্ট্যসমূহ

  • 30 টির অধিক site supported
  • 4k video download করতে পারে।
  • একসাথে একাধিক ভিডিও ডাউনলোড করতে পারে।
  • থ্রি সিক্সটি ডিগ্রি ভিডিও সাপোর্ট করেনা।

আমাদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা WinX Youtube Downloader বেশিরভাগ জনপ্রিয় সাইট থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারে; যেমন: ফেইসবুক, Vimeo, Dailymotion ইত্যাদি।

যদি অরিজিনাল ভিডিও video formatএ 4k ফরম্যাটটি থেকে থাকে, তবে সেটিও ডাউনলোড করা যাবে। 4k video downloader এর কাছে এই প্রোগ্রামটির হারের একমাত্র কারণ: ৩৬০ডিগ্রী ভিডিও ডাউনলোডের অক্ষমতা। এ কারণটি উপেক্ষা করলে এই সফটওয়ারটি বেশ গ্রহণযোগ্য।

৩. aTube Catcher

  • ভিডিও ডাউনলোড চলাকালীন কনভার্ট ও মার্জ করার সুবিধা
  • ব্যাচ ডাউনলোডিং
  • পপুলার ফরম্যাটে ডাউনলোডের সুব্যবস্থা -ইনস্টলেশনেএ্যাডওয়ার রয়েছে

নাম শুনে মনে হতে পারে, এটি কেবলই একটি ইউটিউব ডাউনলোডার। আসলে, এটি প্রায় সকল জনপ্রিয় ভিডিও হোস্টিং সাইট থেকেই ডাউনলোড করতে সক্ষম।
আপনার প্রয়োজনানুযায়ী ডাউনলোডকৃত ভিডিও স্বয়ংক্রিয়ভাবে একাধিক ফরম্যাটে কনভার্ট করা যাবে। যদি একসাথে অধিক পরিমাণ ভিডিও ডাউনলোড করতে চান এ সফটওয়্যার দ্বারা আপনার ব্যান্ডউইডথ-কে সর্বোচ্চ সীমায় নিয়ে যাবার মাধ্যমে সেটিও করতে পারবেন। এই বিশেষ সুবিধাটি সকল ইউটিউব ডাউনলোডার এ থাকেনা।

এর অন্যান্য আনুষঙ্গিক সুবিধাদির মধ্যে রয়েছে যেকোন on screen video recording, video merging এবং disc burning। একে অলরাউন্ডার বলাটা অতিরঞ্জন হবেনা। তবে, ইন্সটলেশনের সময় adware যুক্ত হয়ে পড়ে বলে নিম্নোক্ত সতর্কতা অবলম্বন করুন:

  1. প্রথমবার যখন ইন্সটল অপশন দেখানো হবে; cancel চাপতে ভুলবেন না।
  2. এরপর, দ্বিতীয়বারে decline চাপুন।

এরপরই আপনি এই সফটওয়্যারটি কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত চমক ছাড়া নিশ্চিন্তে উপভোগ করতে পারবেন।

৪. Any Video Converter Free

  • অনন্য format support
  • Video editor
  • ব্যাচ ডাউনলোড করা যায়না
  • অতিরিক্ত সফটওয়্যার বান্ডিল সংবলিত

Any Video Converter Free: YouTube downloader, আবার একই সাথে converter হিসেবে শীর্ষস্থানীয়। এর ফ্রি ভার্সনের একটি অসুবিধা রয়েছে: এর মাধ্যমে একাধারে একটির বেশি ভিডিও ডাউনলোড করা যায়না। এইটুকু অসুবিধা যদি আপনার বিরক্তির উদ্রেক না করে থাকলে; এটি বেশ সুপারিশ যোগ্য।

এতে আপনি পাচ্ছেন অসংখ্য ভিডিও ফরম্যাটের মধ্য থেকে বেছে নেবার সুবিধা এবং একটি বিসিক ভিডিও এডিটর; যার মাধ্যমে ডাউনলোডকৃত ভিডিও crop করা, কালার এডজাস্টমেন্ট এবং overlay text সংযোজন করা যায়।

পুরো প্রক্রিয়াটি বেশ দ্রুত এবং সহজ সাধ্য। এর ইন্টারফেসটি সবার প্রিয় না হলেও, এই সমালোচনাটুকু উপেক্ষা করাই যায়!

ইনস্টলেশনের সময় লক্ষ রাখবেন, যাতে Bytefence এবং Yahooর সফটওয়্যার ঢুকে না পড়ে!

৫.Free Youtube Download

  • Auto download option
  • Batch download
  • তিন মিনিট time limit
  • যে কোন বাটন ক্লিক না করেই ভিডিও লুফে নিন আপনার হাতের মুঠোয়!

Free Youtube Download এর কাজ কি – তা নিশ্চই আলাদা করে বলার প্রয়োজন পড়বে না! এটি সব রকমের শোরগোল ছাপিয়ে নিভৃতচারীর মত কাজ করে চলে। এর মাধ্যমে YouTube থেকে URL পেস্ট করে সামান্য কয়েকটি ক্লিক বা বিনা ক্লিকেই auto-download সেরে নিতে পারবেন। একবারে একাধিক ভিডিও ডাউনলোড করতে পারেন।

ফরম্যাট নির্ধারণেও এতে যথেষ্ট বৈচিত্র্য বিদ্যমান। কোন ফরম্যাটগুলো পেতে পারবেন তা একান্তই অরিজিনাল ভিডিও কোয়ালিটি ওপর নির্ভরশীল। তবে, avi, mp4, iphone/ipod, mkv format প্রায় সব ক্ষেত্রেই প্রাপ্তিযোগ্য। চাইলে, ভিডিওর পরিবর্তে শুধু audio-only mp3 ফরম্যাটেও কনভার্ট করতে পারেন।

এর একমাত্র এবং সবচেয়ে বড় অসুবিধা হলো, ফ্রি ইউটিউব ডাউনলোড দিয়ে; আপনি কেবল মাত্র তিন মিনিটের কম সময়ের ভিডিও গুলোকেই ডাউনলোড করতে পারবেন। যা কিনা, প্রায় সব মিউজিক ভিডিও ডাউনলোড করা থেকেই আপনাকে বঞ্চিত করবে।

ক্যাটাগরিঃ টিপস ও ট্রিক্স