কোয়ার্টজ ঘড়ি বাজারে আনল শাওমি

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaগেজেট রিভিউকোয়ার্টজ ঘড়ি বাজারে আনল শাওমি
Advertisements

শাওমি’র ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী ব্যবসার একটি অংশ মিজিয়া ব্র্যান্ডের সারিতে নতুন একটি ডিভাইস যুক্ত হল, মিজিয়া কোয়ার্টজ ঘড়ি। গত ১৩ জুলাই এক ঘোষণায় শাওমির ইলেকট্রনিক ঘড়ি ব্যবসায় নাম লেখাল। ঘড়িটি মূলত একটি হাইব্রিড ঘড়ি, যার মধ্যে সংমিশ্রন করা হয়েছে ক্লাসিক ঘড়ির কলকব্জা, তার সাথে ইলেকট্রনিক কিছু ফিচার।

এই ঘড়িতে ক্যালোরি কাউন্টার ও পেডোমিটারের মতো একাধিক স্মার্ট ফিচার রয়েছে। স্মার্টফোনের সঙ্গে কানেক্ট করে এই ফিচারগুলি কাজ করবে।

এই ঘড়িটি মাত্র ৩.২ মিলিমিটার পাতলা এবং এর মূল ডায়ালটি ৪০ মিলিমিটার। বড় ডায়ালের ভিতরে নীচের দিকে একটি ছোট সেকেন্ড ডায়াল দেখা যাবে। এই ডায়ালেই মোট কত পা হেঁটেছেন তা দেখা যাবে।

সেট আপের সময় স্মার্টফোনের অ্যাপ থেকে নিজে থেকেই ব্যবহারকারীর টাইমজোন পড়ে নিয়ে সঠিক সময়টি দেখাবে। এর জন্য আলাদা করে মিজিয়া কোয়ার্টজ ওয়াচের সময় ঠিক করতে হবে না।

স্মার্ট ঘড়িটিতে সংযুক্ত করা হয়েছে ব্লুটুথ ৪.০ প্রযুক্তি। এর মাধ্যমে শাওমির অ্যাপের সঙ্গে এই ঘড়ি কানেক্ট করা যাবে। এই অ্যাপের মাধ্যমেই ঘড়ির সময় ঠিক করা যাবে এবং অ্যাপ দিয়ে ঘড়িতে অ্যালার্ম সেট করা যাবে। ব্যবহারকারীদের সুবিধার্থে এই ঘড়িতে একসঙ্গে ১০টি অ্যালার্ম সেট করা সম্ভব। অ্যালার্মের সময়ে এই ঘড়িটি ভাইব্রেট করবে।

ওয়াটারপ্রুফ এই ঘড়ির ওজন ৪২ গ্রাম। অ্যান্ড্রয়েড ৪.৪ ও আইওএস ৭ বা তার বেশি যে কোনো ডিভাইসের সঙ্গে এই ঘড়ি পেয়ার করা যাবে। মিজিয়া কোয়ার্টজ ঘড়িটি তিনটি আকর্ষনীয় বর্ণে বাজারে কিনতে পাওয়া যাবে, সাদা, কালো ও ধূসর রঙে। স্মার্ট এই কোয়ার্টজ ওয়াচে রিপ্লেসেবেল লেদার স্ট্র্যাপ ব্যবহার করা হয়েছে।

এই ঘড়ির দাম চীনের বাজারে ৩৪৯ ইউয়ানে বিক্রি হলেও এটা কিনতে বাঙ্গালীদেরকে গুনতে হবে প্রায় ৪ হাজার ৩৭৫ টাকা।

আপাতত শুধু চীনে এই ঘড়ি উন্মুক্ত করা হয়েছে। অন্যান্য দেশে ঘড়িটি পাওয়ার জন্য কতদিন অপেক্ষা করতে হবে, এ ব্যাপারে এখনো কিছু জানায়নি প্রতিষ্ঠানটি।

ক্যাটাগরিঃ গেজেট রিভিউ
ট্যাগঃ