অ্যানয়েড ফোনের ক্যাশ (Cache) মুছে দেয়ার টিপস

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaটিপস ও ট্রিক্সঅ্যানয়েড ফোনের ক্যাশ (Cache) মুছে দেয়ার টিপস

অ্যান্ড্রয়েড বা আইওএস – যে অপারেটিং সিস্টেমের মোবাইল ফোন হোক না কেন – সব ফোনে অ্যাপ চালু অবস্থায় এর ফাইল সিস্টেমে খণ্ডকালীন সময়ের জন্য তথ্য জমা রাখার কৌশল হিসেবে অসংখ্য ছোট ছোট ফাইল তৈরী করা হয়। পরবর্তী সময় অ্যাপ চালু করার সময় এই ক্যাশ ফাইলগুলোর সাহায্য নিয়ে অ্যাপকে দ্রুত চালু করা হয়।

আপনি যত বেশি অ্যাপ ব্যবহার করেন, তত বেশি স্টোর হতে থাকে তথ্য। টেমপোরারি ফাইলসের মাধ্যমে এ তথ্য স্টোর করে অ্যাপগুলো। আর অ্যানড্রয়েড ফোনের এ টেমপোরারি (Temporary Files) ফাইলসকেই ক্যাশে (Cache) বলে। আপনি যখন কোনও অ্যাপ দ্বিতীয়বার ব্যবহার করবেন, আপনার আগের অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে ইউজার তথ্য জোগাড় করবে অ্যাপটি। আর সেই তথ্য মিলবে ক্যাশে ফাইলস থেকেই।

মনে রাখবেন, কোনও অ্যাপ শুধু সংশ্লিষ্ট টেমপোরারি ফাইলস অ্যাকসেস করতে পারে, অন্য অ্যাপের ফাইলস নয়। পাঠকদের জন্য রইল অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ক্যাশে ক্লিয়ার করার পদ্ধতি। শিখে নিন কিভাবে করবেন।

ক্যাশ ক্লিয়ার করলে কি সুবিধা পাওয়া যায়?

ক্যাশ (Cache) ফাইলগুলোর কিন্তু নিজস্ব গুরুত্ব রয়েছে। তাই সব সময় ক্যাশে ক্লিয়ার করার প্রয়োজন নেই। তবে মাঝেমধ্যে তা করা উচিত।

কেন ক্যাশে ক্লিয়ার করবেন?

ক্যাশে ক্লিয়ার করলে ফোনের স্পেস সাময়িক সময়ের জন্য বাড়ে। পুরোনো ক্যাশ ফাইল খারাপ (corrupt) হয়ে থাকতে পারে। এর জেরে অ্যাপে সমস্যা দেখা দিতে পারে। কোনও অ্যাপ যদি আপডেটে সমস্যা দেখা দেয়। তবে ক্যাশ ক্লিয়ার করলে তা আপডেট নিতে বাধ্য।

নিয়মিত ক্যাশ ক্লিয়ার করা উচিত?

ক্যাশ ক্লিয়ারের (Cache Clear) নিয়ম জানা থাকলে নিয়ম করে তা পরিষ্কারের কথা মনে হতেই পারে। তবে নিয়মিত ক্যাশে ক্লিয়ার মোটেই উচিত নয়। ইতোমধ্যেই ব্যবহার হয় না, এমন ক্যাশে ফাইল ডিলিট করার পদ্ধতি আছে অ্যানড্রয়েডে (Android)। তবে কোন কোন ক্ষেত্রে ক্যাশে ক্লিয়ার করা উচিত?

যখন অ্যাপের ক্যাশে ফাইল করাপ্ট (Corrupt) হয়েছে, যার ফলে অ্যাপে অবাঞ্চিত পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। ব্যক্তিগত তথ্য রয়েছে, এমন অ্যাপের ক্য়াশে ডিলিট করা উচিত। স্টোরেজ সমস্যা থাকলে, অবশ্যই ডিলিট করুন।

কীভাবে ডিলিট করবেন ক্যাশ অ্যানড্রয়েড নতুন ভার্সন অনুযায়ী, প্রতিটি অ্যাপের ক্ষেত্রে পৃথক ভাবে ক্যাশ ডিলিট করতে হয়।

কীভাবে ডিলিট করবেন?

স্মার্টফোনের সেটিংসে যান। সেখান থেকে অ্যাপ সেটিংসে যান। এমন অ্যাপ বেছে নিন, যার ক্যাশে ফাইলের সাইজ বেশি। অ্যাপের ইনফো পেজে গিয়ে ক্লিয়ার ক্যাশে ক্লিক করুন।

ক্যাশ ক্লিয়ার হওয়ার পর কী হয়?

আপনার অ্যাপ থেকে ক্যাশ ক্লিয়ার করার পর অ্যাপের পারফরম্যান্স আগের তুলনায় ভালো হবে। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ফের ক্যাশ ফিরে আসবে। মনে রাখবেন, ক্যাশ ক্লিয়ার করলে আপনাকে দ্বিতীয়বার অ্যাপে লগ ইন করতে হবে না বা অ্যাপে আপনি কতটা এগিয়েছেন, বা ব্যবহার করেছেন, তা প্রভাবিত হবে না।

ক্যাশ ক্লিয়ার করার অ্যাপস?

প্লে স্টোরে এমন অনেক অ্যাপের সন্ধান মিলবে, যেখানে ক্যাশে ক্লিয়ারের দাবি করা হয়েছে। তবে ওই অ্যাপগুলো অনেক সময়ই এমন দাবি করে থাকে, যা কার্যত সম্ভব নয়।

ক্যাটাগরিঃ টিপস ও ট্রিক্স

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.