সকাল-সন্ধ্যায় রাসূলুল্লাহ (সঃ) এর দু`আ ও যিক্‌র

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaইসলামসকাল-সন্ধ্যায় রাসূলুল্লাহ (সঃ) এর দু`আ ও যিক্‌র

যেসব ইবাদাত একান্ত আল্লাহর স্মরণার্থেই করা হয় এবং যেগুলোকে বিশেষভাবে যিক্‌র নামেই অভিহিত করা হয়েছে – সচরাচর যিক্‌র বলতে সেসব মৌখিক ইবাদতকেই বোঝানো হয়।

যিক্‌র শব্দের অর্থ স্মরণ বা উল্লেখ-আলোচনা। মুমিনের সকল নেক কাজই যেহেতু মহান আল্লাহর প্রতি মনোনিবেশ এবং তার স্মরণ, সেজন্য সকল নেক কাজেই মূলত যিক্‌র – কুরআন-হাদীসে যিক্‌রকে এমন ব্যাপক অর্থে উল্লেখ করা হয়েছে। এখানে আমরা যিক্‌র বলতে সেটাকেই বোঝাব।

দু’আ ও আযকার মুমিন জীবনের অন্যতম জরুরি আমল হওয়ার কারণে সর্বদাই তা পালনীয়। যিক্‌র ও দু’আর কোনো নিষিদ্ধ সময় নেই বললেই চলে, বরং সর্বাবস্থায় আল্লাহর স্মরণ করা যায়। আল্লাহর কাছে চাওয়ার জন্য রাতের শেষাংশ হল সবচেয়ে আদর্শ সময়। আর নির্ধারিত দু`আ ও আযকারের সর্বোত্তম সময় হল সকাল ও সন্ধ্যা।

আয়াতুল কুরসী (সকাল – সন্ধ্যায় ১ বার করে পড়া)

اللَّهُ لاَ إِلَهَ إِلاَّ هُوَ الْحَيُّ الْقَيُّومُ لاَ تَأْخُذُهُ سِنَةٌ وَلاَ نَوْمٌ لَهُ مَا فِي السَّمَاوَاتِ وَمَا فِي الأَرْضِ مَنْ ذَا الَّذِي يَشْفَعُ عِنْدَهُ إِلاَّ بِإِذْنِهِ يَعْلَمُ مَا بَيْنَ أَيْدِيهِمْ وَمَا خَلْفَهُمْ وَلاَ يُحِيطُونَ بِشَيْءٍ مِنْ عِلْمِهِ إِلاَّ بِمَا شَاءَ وَسِعَ كُرْسِيُّهُ السَّمَاواتِ وَالأَرْضَ وَلاَ يَئُودُهُ حِفْظُهُمَا وَهُوَ الْعَلِيُّ الْعَظِيمُ


সূরা ইখলাস, সূরা ফালাক্ব ও সূরা নাস ( সকাল-সন্ধ্যায় প্রত্যেকটি ৩ বার করে পড়া)


হাসবিয়াল্লাহু… (সকাল – সন্ধ্যায় ৭ বার করে পড়া)

سْبِيَ اللَّهُ لاَ إِلَهَ إِلاَّ هُوَ عَلَيْهِ تَوَكَّلْتُ وَهُوَ رَبُّ الْعَرْشِ الْعَظِيمِ

অর্থঃ আল্লাহই আমার জন্য যথেষ্ট, তিনি ছাড়া আর কোন হক্ব ইলাহ নেই। আমি তাঁর উপরই ভরসা করেছি। আর তিনি মহান আরশের রব।


সাইয়্যিদুল ইস্তিগফার ( সকাল – সন্ধ্যায় ১ বার করে পড়া)

اللّٰهُمَّ أَنْتَ رَبِّي، لَا إِلٰهَ إِلَّا أَنْتَ، خَلَقْتَنِيْ وَأَنَا عَبْدُكَ، وَأَنَا عَلَى عَهْدِكَ وَوَعْدِكَ مَا اسْتَطَعْتُ، أَعُوْذُ بِكَ مِنْ شَرِّ مَا صَنَعْتُ، أَبُوءُ لَكَ بِنِعْمَتِكَ عَلَىَّ وَأَبُوءُ لَكَ بِذَنْبِيْ، فَاغْفِرْ لِيْ، فَإِنَّهُ لَا يَغْفِرُ الذُّنُوْبَ إِلَّاأَنْتَ۔

আরও পড়ুন:  ওযু (Wudu) করার সঠিক নিয়মঃ বিস্তারিত আলোচনা

দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ৩ বার করে পড়া)

بِسْمِ اللَّهِ الَّذِي لاَ يَضُرُّ مَعَ اسْمِهِ شَىْءٌ فِي الأَرْضِ وَلاَ فِي السَّمَاءِ وَهُوَ السَّمِيعُ الْعَلِيمُ

অর্থঃ শুরু করছি আল্লাহর নামে; যার নামের সাথে আসমান এবং যমীনে কোন কিছুই ক্ষতি করতে পারে না। আর তিনি সর্বশ্রোতা, মহাজ্ঞানী।


দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ১০ বার করে পড়া)

لاَ إِلَهَ إِلاَّ اللَّهُ وَحْدَهُ لاَ شَرِيكَ لَهُ، لَهُ الْمُلْكُ، وَلَهُ الْحَمْدُ، وَهُوَ عَلَى كُلِّ شَىْءٍ قَدِيرٌ‏

অর্থঃ একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কোন ইলাহ নেই, তাঁর কোন শরীক নেই, রাজত্ব তাঁরই, সমস্ত প্রশংসাও তাঁরই, আর তিনি সবকিছুর উপর ক্ষমতাবান।


দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ১ বার করে পড়া)

সকালে বলবেঃ
اللَّهُمَّ بِكَ أَصْبَحْنَا وَبِكَ أَمْسَيْنَا وَبِكَ نَحْيَا وَبِكَ نَمُوتُ وَإِلَيْكَ الْمَصِيرُ

সন্ধ্যায় বলবেঃ
اللَّهُمَّ بِكَ أَمْسَيْنَا وَبِكَ أَصْبَحْنَا وَبِكَ نَحْيَا وَبِكَ نَمُوتُ وَإِلَيْكَ النُّشُورُ

অর্থঃ হে আল্লাহ, আমরা আপনার অনুগ্রহে সকালে/সন্ধ্যায় উপনীত হয়েছি এবং আপনারই অনুগ্রহে আমরা সন্ধ্যায়/সকালে উপনীত হয়েছি। আর আপনার করুণায় আমরা জীবিত থাকি, আপনার ইচ্ছায়ই আমার মৃত্যুবরণ করব; আর আপনার দিকেই প্রত্যাবর্তিত হব।


দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ১ বার করে পড়া)

أَصْبَحْنَا عَلَى فِطْرَةِ الْإِسْلَامِ وَعَلَى كَلِمَةِ الْإِخْلَاصِ، وَعَلَى دِينِ نَبِيِّنَا مُحَمَّدٍ صَلَى اللهُ عَلِيهِ وَسَلَّمَ، وَعَلَى مِلَّةِ أَبِينَا إِبْرَاهِيمَ، حَنِيفَاً مُسْلِماً وَمَا كَانَ مِنَ الْمُشْرِكِينَ
(বি. দ্র. সন্ধ্যায় أَصْبَحْنَا এর স্থলে أَمْسَيْنَا বলতে হবে)


দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ১ বার করে পড়া)

اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ الْعَفْوَ وَالْعَافِيَةَ فِي الدُّنْيَا وَالْآخِرَةِ، اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ الْعَفْوَ وَالْعَافِيَةَ فِي دِينِي وَدُنْيَايَ وَأَهْلِي، وَمَالِي، اللَّهُمَّ اسْتُرْ عَوْرَاتِي، وَآمِنْ رَوْعَاتِي، اللَّهُمَّ احْفَظْنِي مِنْ بَيْنِ يَدَيَّ، وَمِنْ خَلْفِي، وَعَنْ يَمِينِي، وَعَنْ شِمَالِي، وَمِنْ فَوْقِي، وَأَعُوذُ بِعَظَمَتِكَ أَنْ أُغْتَالَ مِنْ تَحْتِي


দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ৩ বার করে পড়া)

اللَّهُمَّ عَافِنِي فِي بَدَنِي، اللَّهُمَّ عَافِنِي فِي سَمْعِي، اللَّهُمَّ عَافِنِي فِي بَصَرِي، لَا إِلَهَ إِلَّا أَنْتَ، اللَّهُمَّ إنِّي أعُوذُ بكَ مِنَ الكُفْرِ والفَقْرِ، اللَّهُمَّ إنِّي أعُوذُ بكَ مِنْ عذابِ القَبْرِ لا إلهَ إلاَّ أنتَ

আরও পড়ুন:  রোজা রেখে করণীয় ও দোষণীয় বিষয়সমূহ

তাসবীহ জিকির (সকাল – সন্ধ্যায় ১০০ বার পড়া)

سُبْحَانَ اللهِ وَبِحَمْدِهِ‏

অর্থঃ আল্লাহর পবিত্রতা বর্ণনা করছি এবং তাঁর প্রশংসা করছি।


দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ৪ বার পড়া)

اللَّهُمَّ إِنِّي أَصْبَحْتُ أُشْهِدُكَ وَأُشْهِدُ حَمَلَةَ عَرْشِكَ وَمَلَائِكَتَكَ، وَجَمِيعَ خَلْقِكَ بأَنَّكَ أَنْتَ اللَّهُ لَا إِلَهَ إِلَّا أَنْتَ وَأَنَّ مُحَمَّدًا عَبْدُكَ وَرَسُولُكَ

বি. দ্র. সন্ধ্যায় أَصْبَحْتُ এর স্থলে أَمْسَيتُ বলতে হবে।

অর্থঃ হে আল্লাহ, আমি সকালে উপনীত হয়েছি। আপনাকে সাক্ষী রাখছি, আরো সাক্ষী রাখছি আপনার ‘আরশ বহনকারীদেরকে এবং আপনার ফেরেশতাগণকে ও আপনার সকল সৃষ্টিকে, (এই মর্মে) যে, নিশ্চয় আপনিই আল্লাহ, একমাত্র আপনি ছাড়া আর কোন ইলাহ নেই, আপনার কোন শরীক নেই; আর মুহাম্মদ (সঃ) আপনার বান্দা ও রাসূল।


দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ১ বার করে পড়া)

يَا حَيُّ يَا قَيُّوْمُ بِرَحْمَتِكَ أَسْتَغِيْث

অর্থঃ হে চিরঞ্জীব, হে চিরস্থায়ী! আমি আপনার অনুগ্রহে সাহায্য – উদ্ধার কামনা করি, আপনি আমার সার্বিক অবস্থা সংশোধন করে দিন, আর আমাকে আমার নিজের কাছে এক পলকের জন্যও সোপর্দ করবেন না।


দোয়া (সকাল – সন্ধ্যায় ১ বার করে পড়া)

اللَّهُمَّ مَا أَصْبَحَ بِي مِنْ نِعْمَةٍ ، أَوْ بِأَحَدٍ مِنْ خَلْقِكَ ، فَمِنْكَ وَحْدَكَ لا شَرِيكَ لَكَ ، فَلَكَ الْحَمْدُ وَلَكَ الشُّكْرُ

অর্থঃ হে আল্লাহ, আমি অথবা আপনার যে কোনো সৃষ্টি যে কোনো নিয়ামতসহ সকালে উপনীত হয়েছি, তা শুধুই আপনার তরফ থেকে, আপনার কোন অংশীদার নেই। সুতরাং আপনার জন্যই প্রশংসা ও কৃতজ্ঞতা।


দোয়া (সকালে ৩ বার পড়া)

سُبْحَانَ اللّٰهِ وَبِحَمْدِهِ، عَدَدَ خَلْقِهِ، وَرِضَا نَفْسِهِ، وَزِنَةَ عَرْشِهِ، وَمِدَادَ كَلِمَاتِهِ

অর্থঃ আমি আল্লাহর প্রশংসাসহ পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা করছি, তাঁর সৃষ্টির সংখ্যার সমান, তাঁর নিজের সন্তোষের সমান, তাঁর আরশের ওজনের সমান ও তাঁর বাণীসমূহ লেখার কালি সমপরিমাণ।

আরও পড়ুন:  যে ঘরে শয়তান কখনো প্রবেশ করতে পারে না

দোয়া (ফজরের সালাতের পর ১ বার পড়া)

اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ عِلْمًا نَافِعًا وَرِزْقًا طَيِّبًا وَعَمَلاً مُتَقَبَّلاً

অর্থঃ হে আল্লাহ, আমি আপনার কাছে উপকারী জ্ঞান এবং হালাল রিযিক ও কবুলযোগ্য আমল চাই।


দোয়া (সন্ধ্যায় ৩ বার )

أَعُوذُ بِكَلِمَاتِ اللَّهِ التَّامَّاتِ مِنْ شَرِّ مَا خَلَقَ

অর্থঃ আল্লাহর পরিপূর্ণ কালিমারসমূহের মাধ্যমে আমি তাঁর নিকট তাঁর সৃষ্টির ক্ষতি থেকে আশ্রয় চাই।


দোয়া (সন্ধ্যায় ৩ বার পড়া)

رَضِيْتُ بِاللهِ رَبًّا، وَبِالإِسْلَامِ دِيْنًا، وَبِمُحَمَّدٍ نَبِيًّا

অর্থঃ আমি সন্তুষ্টচিত্তে আল্লাহকে রব, ইসলামকে দীন ও মুহাম্মদ (সঃ) কে নবীরূপে গ্রহণ করেছি।


দোয়া (ফজর ও মাগরিবের পর ৭ বার করে পড়া)

اللَّهُمَّ أَجِرْنِي مِنَ النَّارِ

অর্থঃ হে আল্লাহ, আমাকে জাহান্নামের আগুন থেকে রক্ষা করুন।


তাসবীহ (ফজরের পরে ও মাগরিবের পূর্বে প্রতিটি ১০০ বার করে পড়া)

سُبْحَانَ اللّٰهِ (সুবহানাল্লাহ)
অর্থঃ আল্লাহর পবিত্রতা বর্ণনা করছি
اَلْحَمْدُ لِلّٰهِ (আলহামদুলিল্লাহ)
অর্থঃ সকল প্রশংসা আল্লাহর
اللَّهُ أَكْبَرُ (আল্লহু আকবার)
অর্থঃ আল্লাহ সবচেয়ে মহান

ক্যাটাগরিঃ ইসলাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.