হলুদ গুঁড়া চায়ের যত উপকারিতা

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaস্বাস্থ্যহলুদ গুঁড়া চায়ের যত উপকারিতা

কখনও হলুদ গুঁড়া দিয়ে বানানো চায়ের স্বাদ পরখ করে দেখেছেন কি? লাল চা, কিংবা,দুধ চা নয়! একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, চায়ে অল্প হলুদ গুঁড়া মিশিয়ে খেলে শরীরের অন্দরে এমন পরিবর্তন হতে শুরু করে যে, কোনও রোগই আক্রমণের সাহস পায় না। নিয়মিত হলুদ গুঁড়া মেশানো চা খেলে অনেক উপকার হয়:

হলুদ গুঁড়া চায়ের উপকারিতা

১) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

হলুদ দিয়ে বানানো চা খেলে শরীরের অন্দরে ধীরে ধীরে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বাড়তে শুরু করে। ফলে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত সুস্থ থাকতে পারবেন।

২) স্মৃতিশক্তির উন্নতি ঘটে

হলুদে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা রক্তে উপস্থিত ক্ষতিকর উপাদান শরীরে থেকে বের করে ব্রেন সেল ড্যামেজের আশঙ্কা কমিয়ে দেয়। অন্যদিকে কার্কিউমিন মস্তিষ্কের বিশেষ কিছু অংশের ক্ষমতা এতটা বাড়িয়ে দেয় যে স্মৃতিশক্তি লোপ পাওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়।

৩) আর্থ্রাইটিসের কষ্ট কমে

সকাল-বিকাল মিলিয়ে দু-কাপ হলুদ চা পান করলে হলুদে থাকা কার্কিউমিন শরীরে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটারি উপাদানের মাত্রা বৃদ্ধি পায় ফলে জয়েন্ট পেন ও যন্ত্রণা কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

৪) খারাপ কোলেস্টরলের মাত্রা কমায়

বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে হলুদে উপস্থিত কার্কিউমিন রক্তে জমতে থাকা এল ডি এল বা খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায় যাতে স্বাভাবিভাবেই হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের সম্ভাবনাও হ্রাস পায়।

৫) ক্যান্সার রোগকে দূরে রাখে

ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের প্রকাশ করা রিপোর্ট অনুসারে হলুদে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি প্রপাটিজ, শরীরে যাতে ক্যান্সার সেল জন্ম নিতে না পারে সেদিকে খেয়াল করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ক্যান্সার রোগ ধারে কাছেও ঘেঁষতে পারে না।

৬) হার্টের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটে

একাদিক গবেষণায় দেখা গেছে নিয়মিত হলুদ দিয়ে বানানো চা খেলে হার্টে রক্ত সরবরাহকারি আর্টারিদের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পেতে শুরু করে। ফলে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হার্টের কোনও ধরনের ক্ষতি হওয়ার বা হার্ট ডিজিজে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে। শুধু তাই নয়, স্ট্রোকের মতো মরণ রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমাতেও হলুদ বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাই হার্টকে যদি দীর্ঘদিন চাঙ্গা রাখতে চান, হলুদ দিয়ে বানানো চা খান।

৭) হজমশক্তির উন্নতি ঘটায়

বাঙালি মানেই খাদ্যরসিক,হলুদে উপস্থিত একাধিক উপকারি উপাদান পাকস্থলিতে থাকা উপকারি ব্যাকটেরিয়ার শক্তি বাড়িয়ে দেয়। ফলে হজম ক্ষমতা এতটা বেড়ে যায় যে বদ-হজম দূরে পালায়।

কিভাবে বানাবেন হলুদ গুঁড়ার চা?

হলুদ গুঁড়ার চা তৈরী একেবারে সহজভাবে তৈরী করা যায়। স্বাভাবিক পদ্ধতিতে রং বানানোর সময় এর সাথে এক চিমটি হলুদ গুড়া মিশিয়ে নিলেই হল। এই পানীয়তে স্বাদ আনতে এর সাথে মেশাতে পারেন, মধু বা আদা।

ইউটিউবের এই ভিডিও থেকে দেখে আসতে পারেন, হলুদ গুঁড়া চা বানোর ঝটপট রেসিপি।

ক্যাটাগরিঃ স্বাস্থ্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.