ল্যাপটপ পরিষ্কার করার সঠিক কেতাবি নিয়ম

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaটিপস ও ট্রিক্সল্যাপটপ পরিষ্কার করার সঠিক কেতাবি নিয়ম

ল্যাপটপ বা ল্যাপটপের কিবোর্ড কিছুদিন ব্যবহার করলেই ধুলো পড়ে। আমরা এই ধুলো বালি পরিষ্কার করলেও ল্যাপটপের নানা ফাঁকে ময়লা থেকে যায়, যা খালি চোখে ভালোভাবে দেখা যায়। আর এই ময়লাগুলো ল্যাপটপে রেখে দিলেই পরে শুরু হয় সমস্যা।

কয়েক বছর আগে International Journal of Environmental Research and Public Health নামক পত্রিকায় University of Veterinary Medicine and Pharmacy Employees-এর একটি গবেষণাপত্র প্রকাশিত হয়। সেখানে দেখা যায়, যে কোনও কিবোর্ডের ৯৬ শতাংশ অংশই নানা ধরনের ব্যাকটিরিয়ায় ভরা থাকে। সেগুলো নানা ধরনের সংক্রমণের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

কিবোর্ড কী দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে এই বিষয়ে অনেকেই জানেন না। বিজ্ঞানীরা বলছেন, ৭০ শতাংশ আইসোপ্রোপাইল দিয়ে পরিষ্কার করলে কিবোর্ডের কোন ক্ষতি হয় না, আবার জীবাণুও পরিষ্কার হয়। কিন্তু এখন প্রশ্ন হলো কীভাবে পরিষ্কার করবেন আর কতদিন অন্তর পরিষ্কার করবেন?

কীভাবে পরিষ্কার করবেন?

কম্পিউটার এবং ল্যাপটপ নির্মাতা সংস্থা বলছে, নরম সুতির কাপড়ে আইসোপ্রোপাইল লাগিয়ে, তা দিয়ে কিবোর্ড পরিষ্কার করা উচিত। ডিসপ্লেও একই ভাবে পরিষ্কার করা যেতে পারে। তবে কখনো আইসোপ্রোপাইল সরাসরি কিবোর্ডে স্প্রে করা যাবে না।

কত দিন অন্তর পরিষ্কার করবেন?

‘ইউনিভার্সিটি অব ভেটেরিনারি মেডিসিন অ্যান্ড ফার্মেসি এমপ্লয়িজ’-এর একটি গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, এক বার পরিষ্কার করার দু’সপ্তাহ পর থেকে আবার দ্রুত গতিতে জীবাণুর বংশবৃদ্ধি হতে থাকে। তাই দু’সপ্তাহ পর পর ল্যাপটপ বা কম্পিউটারের কিবোর্ড পরিষ্কার করা উচিত।

ল্যাপটপ পরিষ্কার করার সাধারণ জ্ঞাতব্য বিষয়সমূহ

  • পরিষ্কার করার জন্য প্রথমেই ল্যাপটপ বন্ধ করে দিতে হবে। এর পর নরম সুতির কাপড় দিয়ে মুছে নিন।
  • কি-বোর্ড পরিষ্কার করার জন্য কি-বোর্ড ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন। এ ছাড়া কমপ্রেসড এয়ার ক্যানও ব্যবহার করা যায়। কি-বোর্ডে ময়লা খুব বেশি থাকলে সাদা ভিনিগারে মাইক্রোফাইবারের কাপড় ডুবিয়ে আলতো করে মুছে নিন।
  • নতুন ল্যাপটপ কেনার সময় কি-বোর্ড প্রোটেক্টর লাগিয়ে নেবেন। ল্যাপটপ টাচ স্ক্রিন হলে অবশ্যই স্ক্রিন প্রোটেক্টর ব্যবহার করুন। কখনও ল্যাপটপ পানি বা গ্লাস ক্লিনার দিয়ে মুছবেন না।
  • ল্যাপটপের এয়ারভেন্ট যাতে পরিষ্কার থাকে সেদিতে খেয়াল রাখুন। মাঝেমধ্যে নরম ব্রাশ দিয়ে ভেন্ট পরিষ্কার করুন।
  • খুব গরম জায়গা, হিটার কিংবা রান্নঘরের কাছাকাছি ল্যাপটপ রাখবেন না।
  • বন্ধ গাড়ির তাপমাত্রাও বেশি থাকে। তাই গাড়িতে দীর্ঘক্ষণ ল্যাপটপে ফেলে রাখবেন না। অনেক ল্যাপটপেরই নিচের দিকে এয়ারভেন্ট থাকে। তাই বিছানায় ল্যাপটপ রেখে ব্যবহার না করাই ভালো।
  • ল্যাপটপের ওপর মোটা বই বা ভারী কিছু রাখবেন না। এতে ডিসপ্লে বা কি-বোর্ডের ক্ষতি হতে পারে।
  • ল্যাপটপে কাজ হয়ে গেলে ডিসপ্লে ইউনিটটি বন্ধ করে রাখুন।
  • ল্যাপটপ সারাতে দেয়ার আগে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো ব্যাকআপ অবশ্যই নিয়ে রাখুন। হঠাৎ করে ল্যাপটপ খারাপ হলে অনেক সময় ফরম্যাট করে দিতে হয়। তাই সাবধান থাকা দরকার।
  • ল্যাপটপ নিয়ে ট্র্যাভেল করার সময় ল্যাপটপ কভার এবং উপযুক্ত ল্যাপটপ ব্যাগ ব্যবহার করুন। এতে ধুলো, ময়লা, স্ক্র্যাচ বা হঠাৎ আঘাত লাগা থেকে ল্যাপটপ নিরাপদ থাকবে।
  • চা-কফি বা তরলজাতীয় জিনিস ল্যাপটপ থেকে দূরে রাখুন।
  • ডিসপ্লে ধরে কখনও ল্যাপটপ সরাবেন না।
  • বছরে একবার কোনো নির্ভরযোগ্য সার্ভিস সেন্টার থেকে ল্যাপটপ সার্ভিসিং করিয়ে নিন।

ল্যাপটপের স্ক্রিন পরিষ্কার করার কৌশল

ল্যাপটপের স্ক্রিন খুবই স্পর্শকাতর। আবার স্ক্রিন পরিষ্কার রাখাও একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যপার। তাই স্ক্রিন পরিষ্কার করার সময় কিছু কৌশল অবলম্বন করা উচিৎ:

  • ল্যাপটপটি টার্ন অফ করে এর এডাপ্টারটি খুলে নিতে হবে। ল্যাপটপ চালু থাকা অবস্থায় এর স্ক্রিন পরিষ্কার করতে গেলে স্ক্রিনের ক্ষতি হতে পারে।
  • মোছার জন্য মাইক্রোফাইবারের কাপড় ব্যবহার করা উচিৎ। এ ধরনের কাপড় থেকে ববলিং কম হয় এবং সুতোর টুকরো ছড়িয়ে পড়ে না।
  • আলতোভাবে স্ক্রিনটি মুছতে হবে। বেশি জোর দেয়া যাবে না।
  • পরিষ্কার করার জন্য কখনই সাবান বা ডিটার্জেন্ট জাতীয় কিছু ব্যবহার করা যাবে না। স্ক্রিন পরিষ্কার করার জন্য তৈরি বিশেষ ধরনের সল্যুশন বাজারে পাওয়া যায়। এগুলো ব্যবহার করা উচিত অথবা পরিষ্কার পানির সাথে অল্প পরিমাণে ভিনেগার মিশিয়ে সল্যুশন তৈরি করে নেওয়া যেতে পারে।
  • কখনোই স্ক্রিনে সরাসরি পানি ছিটানো বা স্প্রে করা উচিৎ না। প্রয়োজনে কাপড় ভিজিয়ে নিয়ে সেই কাপড় দিয়ে ধীরে ধীরে মোছা উচিৎ।
  • কাপড়টিকে স্ক্রিনের উপর বৃত্তাকারে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে স্ক্রিনের ময়লা মুছে নিতে হবে। ধুলো বা ময়লা বেশি থাকলে ভেজানোর আগে একবার শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে নেয়া উচিৎ।
ক্যাটাগরিঃ টিপস ও ট্রিক্স

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.