২ ধরণের ফালুদা তৈরির সহজ রেসিপি

HelloBanglaWorld - Know Everything in Banglaরেসিপি২ ধরণের ফালুদা তৈরির সহজ রেসিপি

দক্ষিণ এশিয়ায় বেশ স্বাদের একটি খাবার ফালুদা। এটা বেশ মিষ্টি জাতীয় খাবার। আজকের রেসিপিতে যে ফালুদা বানানো শিখব, তার উপকরণসমূহ সব স্থানীয় বাজারে পাওয়া যায়।

ফ্রুট ফালুদা

ফ্রুট ফালুদা তৈরীর উপকরণ

উপকরণপরিমাণ
সাগু দানাএক কাপ
চিনির সিরাএক কাপ
গুড়া দুধপাঁচ চামচ
পেস্তা বাদামরুচি মত
সিদ্ধ নুডুলসএক কাপ
ভ্যানিলা আইসক্রিমরুচি মত
আপেল কুচিরুচি মত
বরফ কুচিরুচি মত
ফ্রুট সিরাপ (বা, রুহ আফজা)দুই চামচ

ফ্রুট ফালুদা তৈরীর পদ্ধতি

১।প্রথমে ৫ চামচ গুড়া দুধকে আধা লিটার পানিতে গুলিয়ে চুলোয় গরম করতে থাকুন। আধা লিটার পানিকে গরম করতে ১ গ্লাস এ নিয়ে আসুন। দুধটা যেন খুব ঘন হয়, পাতলা হলে আগের মত তাপ দিয়ে ঘন করুন। তারপর, সেটি ঠাণ্ডা স্থানে রাখুন।
২।এবার ১ কাপ সাগুদানাকে ঠিক আগের মত আধা লিটার পানির ভিতর গরম করুন। যখন দেখবেন সাগুদানাগুলি এক ধরনের পানি বলের মত আকার ধারন করবে, ঠিক ঐ সময় সাগুদানা নামিয়ে ফেলুন। মনে রাখবেন সাগুদানা যখন সিদ্ধ করবেন, তখন তা বার বার নাড়তে থাকবেন। এটি করতে সময় লাগে ৬-৭ মিনিট।
৩।১ কাপ চিনির সিরা তৈরী করুন।
৪।নুডুলস সিদ্ধ করুন, যাতে তা ১ কাপ পরিমাণ হয়।
৫।আপেলকে কুচি করে কেটে ১ কাপ পরিমান মত নিন।
৬।কিছু পেস্তাবাদামকে ভাল করে ধুয়ে এর উপরের খোসা তুলে ফেলুন। তারপর একে কুচি করুন।
৭।এবার একটি গ্লাসে দুধগুলো ঢালুন। তারপর আপেল এর কুচি, পেস্তা বাদাম এর কুচি, সিদ্ধ নুডুলস, সাগুদানা, দুই চামচ ফ্রুট সিরাপ (না থাকলে, রুহ আফজা) – এসব মিশিয়ে নেড়ে এর উপর (বরফ আর ভ্যানিলা আইসক্রিম)দিয়ে পরিবেশন করুন!

জেলাটিন দিয়ে গোলাপী রঙের ফালুদা

জেলাটিন ফালুদা তৈরীর উপকরণ

উপকরণপরিমাণ
তরল দুধএক লিটার
সাগুদানাএক কাপ
চিনিস্বাদমতো
প্লেইন স্টিক সিদ্ধ নুডলসআধা কাপ
নিজের ইচ্ছে মতো কালারফুল ফল কাটা (আম, তরমুজ, লিচু, ডালিম, আঙ্গুর, টক ফল বাদ দিন)দুই কাপ
বাদাম কুচি (২/৩ ধরণের)রুচি মত
কিসমিস কুচিসামান্য
জেলাটিনপরিমাণ মত
ফ্রুট সিরাপ (বা, রুহ আফজা)কয়েক ফোটা
ভ্যানিলা ফ্লেভার৩/৪ ফোটা
গোলাপী কালারের আইসক্রিমপরিমাণ মত
গোলাপ পাপড়ি (সাজানোর জন্য)অল্প পরিমাণ

জেলাটিন ফালুদা তৈরীর পদ্ধতি

১।প্রথমে দুধটাকে ফুটিয়ে একটু ঘন করে নিন। এরপর এতে চিনি দিয়ে মিশিয়ে নিন। চিনি গলে মিশে গেলে এতে সাগুদানা দিয়ে রান্না করুন। সাগুদানা প্রায় রান্না হয়ে এলে এতে নুডলস দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। সবটা রান্না হয়ে এলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে ফ্রিজে রাখুন।
২।জেলাটিন প্যাকেটের নিয়ম অনুযায়ী প্রস্তুত করে নিন। যদি জেলাটিনের সাথে রঙ এবং ফ্লেভার দেওয়াই থাকে, তবে আর ফুড কালার এবং ফ্লেভার দেবার প্রয়োজন হবে না। সাধারণত এক টেবিল চামচ জেলাটিন গুঁড়োর জন্য দুই কাপ পানি প্রয়োজন হয়। দুই কাপ পানিতে মিশিয়ে নিন দুই টেবিল চামচ চিনি। এতে এক টেবিল চামচ জেলাটিন এবং এক-দুই ফোঁটা ফুড কালার ও ফুড ফ্লেভার মিশিয়ে গরম করে নিন যতক্ষণ না জেলাটিন গলে মিশে যায় তরলের সাথে। এরপর চুলা থেকে নামিয়ে ছাঁচের ভেতর ঢেলে নিতে পারেন এই মিশ্রণ। প্লাস্টিকের তৈরি বিভিন্ন শেপের আইস কিউব ছাঁচ পাওয়া যায়, সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন। অথবা সাধারণ একটি প্লাস্টিকের কন্টেইনারে রেখেও ফ্রিজে জমিয়ে নিতে পারেন জেলাটিন। জমে গেলে এটাকে বের করে ইচ্ছেমত শেপে কেটে নিন। জেলাটিন করতে ঝামেলা মনে হলে দুই রকম জেলি কিনে প্লেটে ছড়িয়ে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে চাকু দিয়ে ছোট ছোট করে কিউব আকারে কেটে নিতে পারেন।
৩।বিভিন্ন ফল কেটে চিনি-পানির মিশ্রণে মাখিয়ে ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন, এতে কালো হয়ে যাবে না।
৪।পেস্তাবাদাম, কাজুবাদাম, কাঠবাদাম – এগুলো কুঁচি করে নিতে পারেন।
৫।ফালুদা তৈরির সবচাইতে গুরুত্বপুর্ণ ধাপ হলো সাজানো। সুন্দর লম্বা কাঁচের গ্লাস প্রস্তুত করতে হবে ফালুদার জন্য। প্রথমে কয়েক রকমের ফল ১/২ চামচ রাখতে হবে গ্লাসে। এরপর সাবু এবং নুডলসের মিশ্রণ ফ্রিজ থেকে বের করে গ্লাসের তিন ভাগের এক ভাগ পুর্ণ করতে হবে। এরপর এর ওপরে দিতে হবে জেলি। একের বেশি রঙের জেলি থাকলে তা দেখতে সুন্দর লাগবে। সবার ওপরে স্ট্রবেরি আইসক্রিম, বাদামের মিশ্রণ এবং অল্প করে জেলি দিয়ে পরিবেশন করতে পারেন ফালুদা। সবার ওপরে একটি চেরি দিয়ে তার চারদিকে গোলাপের পাপড়ি দিলে আরও ভালো লাগবে দেখতে।

ব্যাস! তৈরী হয়ে গেলো আমার গোলাপ রাঙা ফালুদা। শুধু আইসক্রিমের ফ্লেভার চেঞ্জ করে আপনি এভাবে ম্যাংগো ফালুদাও বানাতে পারেন।

ক্যাটাগরিঃ রেসিপি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.